সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢোকার সময় সেনার হাতে ধৃত এক ১২ বছরের পাকিস্তানি কিশোর। শুক্রবার সন্ধেয় জম্মু ও কাশ্মীরের রাজৌরিতে লাইন অফ কন্ট্রোলের কাছ থেকে ওই কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই কিশোর পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।

PoKসেনাবাহিনীর সন্দেহ, পাক সেনাই পাঠিয়েছে ওই কিশোরকে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এক মুখপাত্র জানান, ‘রাজৌরির নৌসেনা সেক্টরের কাছ থেকে ওই কিশোরকে গ্রেফতার করা হয় শুক্রবার সন্ধেয়। সেনাবাহিনী নজরদারি চালানোর সময় ওই কিশোরকে গ্রেফতার করেছে।’ ধৃত কিশোরের নাম আশফাক আলি চৌহান। এই কিশোর পাক সেনার বালোচ রেজিমেন্টের অবসরপ্রাপ্ত সেনা জওয়ানের ছেলে। এদিন সন্ধেয় সন্দেহজনকভাবে তাকে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায় সীমান্তের কাছে। সেনাবাহিনীর কাছে ধরা পড়তেই সে আত্মসমর্পণ করে।

জঙ্গি অনুপ্রবেশের পথ চিহ্নিত করতেই পাক সেনা ও পাক জঙ্গি মিলে ওই কিশোরকে পাঠিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। সামরিক নজরদারিতে থাকা এলাকায় কিভাবে পাক সেনা এক ১২ বছরের কিশোরকে পাঠাতে পারে! পাকিস্তানের মানবিকতা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশের হাতে ওই কিশোরকে তুলে দেবে সেনা।

সৌজন্যে : কলকাতা 24×7