unnamed-32-511x250পুজো ঘিরে পুণ্যার্থী ও অপর পক্ষের মধ্যে অশান্তি- উত্তেজনা তৈরি হল মন্তেশ্বরে। দুপক্ষের মধ্যে চলল ইটবৃষ্টি। বোমাবাজি হয় বলেও স্থানীয় সূত্রে খবর।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ২৫-৩০ জনকে গ্রেফতার করেছে স্থানীয় পুলিশ।ঘটনায় এলাকায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি।এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

মন্তেশ্বরের দেনুড় পঞ্চায়েতের ধেনুয়া গ্রামের বড়গড় পুকুরের কাছে ধর্মরাজের পুজোর বেদী রয়েছে। সেখানে শুক্রবার বিশেষ পুজোকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় বলে স্থানীয় মানুষজনের সুত্রে জানা গেছে। পুজোর জন্য এলাকায় ঢাক বাজানো ‌যাবে না, মাইকও খুলে নেওয়ার কথা বলা হয় অপর পক্ষে। দুপক্ষকে মন্তেশ্বর থানায় ডেকে পাঠানো হয়েছিল। সেখানে উভয় পক্ষের সম্মতিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, শুক্রুবার হিন্দু সন্ন্যাসীরা ওই বেদিতে পুজো দিতে পারবেন এবং ভাঁড়াল নাচ করতে পারবেন। যথা সময়ে শুক্রবারে ঢাক বাজিয়ে পুজো দিতে ‌যান পুণ্যার্থীরা। তখন পুণ্যার্থীদের বাধা দেয় অপর গোষ্ঠী।

পূজার বেদীর ঢাক বাজানো মাইক বাজানো বন্ধ করতে বলা হয়। পুণ্যার্থীরা মাইক খুলে ফেললেও তবে তাতেও অশান্তি এড়ানো ‌যায়নি। তখনই দুপক্ষের মধ্যে বচসা বাধে। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, পুজোয় ‌যাতে ঢাক না বাজে, সেটা ওরা বলেছিল। কিন্তু এটা দীর্ঘ কয়েকবছরের রীতি। বন্ধ রাখা সম্ভব নয়। সেইসময় অন্য পক্ষের লোকজন পূর্ণাথীদের উপর হামলা চালায়।