indian-armyyy-1শনিবারের পর রবিবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠল শ্রীনগরের পান্থচক।গতকাল সিআরপিএফের ওপরে হামলার পর দুই জঙ্গি আশ্রয় নিয়েছে পান্থচকের ডিপিএস স্কুলে। তাদের বের করে আনতেই রবিবার ভোর থেকে শুরু হয়েছে গুলির লড়াই।

উল্লেখ্য, গতকাল শ্রীনগর-জম্মু জাতীয় সড়কের ওপরে পান্থচকে সিআরপিএফের ২৯ নম্বর ব্যাটালিয়নের পরে হামলা চালায় কমপক্ষে ৫ জঙ্গি। তাদের গুলিতে নিহত হয় ২ জওয়ান। আহত হন আরও ৩ জন। হামলার পরই দুই জঙ্গি পান্থচকের দিল্লি পাবলিক স্কুলে ঢুকে পড়ে। জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের এক আধিকারিকের কথায়, জঙ্গি-সেনা গুলির লড়াই শুরু হয়েছে রবিবার ভোর ৩টে ৪০ মিনিট নাগাদ।

পান্থচক একটি জনবহুল এলাকা হওয়ায় অধিকাংশ জঙ্গি গা ঢাকা দিতে সফল হয়। কিন্তু তা করতে পারেনি ২ জন। এরাই লুকিয়েছে স্কুল। পান্থচকের ডিপিএস স্কুলে রয়েছে ৪০০ ঘর। ফলে সেখানে খুব সহজেই তারা লুকিয়ে পড়তে পেরেছে। তাদের ঘিরে ফেলেছে সেনা। জঙ্গিদের খুঁজে বের করতে ড্রোন ব্যবহার করা হচ্ছে।

গতকাল হামলার পরই পান্থচককে ঘিরে ফেলে সিআরপিএফ। শ্রীনগর-জম্মু জাতীয় সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়। শুরু হয় চিরুণী তল্লাশী। এর ফলে জঙ্গিদের সবাই পালাতে পারেনি।

চিত্র ও খবর সৌজন্যে : http://www.india.com